Currently set to Index
Currently set to Follow
অভীক সরকার বই Pdf (All) | Avik Sarkar Books PDF Download

‘হেমলকের নিমন্ত্রণ বই রিভিউ

‘হেমলকের নিমন্ত্রণ’ – সুজন দেবনাথ
রিভিউনামা
Book হেমলকের নিমন্ত্রণ
Author
Publisher
ISBN 9789849496908
Edition 1st Published, 2020
Number of Pages 528
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা
এ বই পড়া শুরু করতেই আমি প্রবেশ করি গ্রীসের এথেন্সে। আমি মহান সক্রেটিস এর পেছনে ঘুরতে থাকি। সক্রেটিস যেখানেই যায় আমিও ছায়ার মত সেখানেই যাই। উদ্ভ্রান্ত এক যুবকের পেছনে এথেন্সের অলিগলিতে যেতে থাকি আমি। উনি যাই বলেন তাই শুনেই মনে হয়, এভাবে তো কেউ কখনো বলেনি, এভাবেতো কেউ ভাবেনি।
উনি মানুষকে প্রশ্ন করে অনবরত। প্রতিটা জিনিস বেরিয়ে আসে উনার প্রশ্ন প্রশ্ন খেলাতে। উনার জ্ঞান, প্রশ্ন প্রশ্ন খেলাতে আকৃষ্ট হয়ে তরুনরা দলে দলে যোগ দেয়, একই সাথে তার বাড়তে থাকে তাকে অপছন্দ করা মানুষ। এই পছন্দ করা আর অপছন্দ করা মানুষের একটা সম্পর্ক আছে। একটা বাড়লে আরেকটা তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ে। এর পেছনের কারন মানুষের ঈর্ষাকাতরতা।
সক্রেটিস জীবনের শুরুতে সবাইকে বলে বেড়ায়, নিজেকে জানো। এর মাধ্যমেই জানতে পারবে পুরো দুনিয়াকে। এই বাক্যের গভীরতা অনুধাবন করতে আপনাকে গভীরভাবে ভাবতে হবে।
সেসময় এথেন্স হয়ে উঠে জ্ঞানীদের রাজ্য। চারদিকে জ্ঞানের চর্চা। পৃথিবীর সকল জ্ঞানের শাখা-প্রশাখাগুলো গুলো তখন আবিস্কার হচ্ছে। সাহিত্য, ইতিহাস, বিজ্ঞান, দর্শন, নাটক এর আবিস্কার হয় তখন। একই

সাথে গনতন্ত্রের সুচনা। চারদিকে গনতন্ত্রের জোয়ার। গনতন্ত্রের সুবিধাভোগ করছে গ্রীসের এথেন্সবাসী।

সক্রেটিস এত চর্চার মধ্যে বের করলো, তার চর্চার বিষয় হচ্ছে, মানুষ। মানুষ নিয়ে তিনি ভাববে। মানুষের সুন্দর জীবন নিয়ে তিনি ভাববে। কিভাবে মানুষের জীবন সুন্দর করা যায় এই নিয়েই তার ভাবনা, এই নিয়েই পথে পথে তার আলোচনা। মানুষ পাগলের মত ভালোবাসছে তাকে। শত শত শিষ্য হচ্ছে। পুরো পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ছে সক্রেটিস এর ভাবনা।
ভালোবাসার তিনটি স্তর। প্রথম স্তরে হচ্ছে, মানুষের সৌন্দর্যের প্রতি ভালোবাসা। দ্বিতীয় স্তরে হচ্ছে, মানুষের মনের প্রতি ভালোবাসা, এবং সর্বশেষ স্তরে হচ্ছে জ্ঞানের প্রতি ভালোবাসা। জ্ঞানের প্রতি ভালোবাসাই হচ্ছে মানুষের জীবনের সবচেয়ে উৎকৃষ্ট ভালোবাসা।
এরকম হাজারো জীবনদর্শন রয়েছে বই এর প্রতিটি পেজে। রয়েছে সেসময় দেবদেবীদের নিয়ে মিথ। হোমারের মহাকাব্য নিয়ে বিশ্লেষণ। ওডিসি, ইদিপাস নিয়ে আলোচনা।
সেসময় এথেন্স কে সারা পৃথিবীর সেরা বানায় গনতন্ত্রের নেতা পেরিক্লিস। স্থাপত্য, জ্যামিতি, মূর্তির সুচনা উনার হাত ধরে। অলিম্পিক শুরু হওয়ার কাহিনী বর্নিত আছে এই বই এ।
যুদ্ধের ভয়াবহতা আছে, প্লেগ রোগে পুরো রাজ্য শেষ হওয়া এবং সেখান থেকে চিকিৎসা বিদ্যার পথিকৃত হিপোক্রাটিস এর অবর্ননীয় সংগ্রামের মাধ্যমে প্লেগ রোগকে নিয়ন্ত্রণ এর গল্প আছে এ বই এ।
সক্রেটিস এর প্রধান শিষ্য প্লেটোর গল্প আছে এখানে। কতোটা পাগল ছিলেন তিনি সক্রেটিস এর, সে ব্যাপারে বলা হয়েছে।
হিংসে, ঈর্ষাকাতরতার জন্য পৃথিবীর অমুল্য সম্পদ সক্রেটিস এর জীবন দেওয়া। এবং জীবন দেওয়ার সময়ও তার নীতিতে অবিচল থাকা নিয়ে লেখক অসাধারণ ভাবে লিখেছেন এই বই এ।
বই এর প্রতিটা পাতায় রয়েছে জীবনদর্শন, ইতিহাস। রয়েছে ভালোবাসার গল্প।
দর্শন নিয়ে যার বিন্দুমাত্র আগ্রহ রয়েছে তাদের জন্য এ বই একটা মধু।
আমার অতি ক্ষুদ্র জ্ঞানে মনে হয়েছে, আমি এতদিন যা খুজছিলাম, তা এই বই। আমার পড়া শ্রেষ্ঠ বই এটা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button