Currently set to Index
Currently set to Follow
Arif azad All books pdf Download

ইলুমিনাতি বই রিভিউ

ইলুমিনাতি বই pdf book download link – illuminati bangla pdf free

বই : ইলুমিনাতি
রচনা : আবদুল কাইয়্যুম আহমেদ
প্রকাশক : বইকেন্দ্র পাবলিকেশন
বারমুডা ট্রায়াঙ্গাল নিয়ে যারা অতিমাত্রায় বাড়াবাড়ি করেন তাদের জন্য “ইলুমিনাতি” বই থেকে
কুসচ (Kusche)-এর ব্যাখ্যা
.
লরেন্স ডেভিড কুসচ হলেন অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটি-র রিসার্চ লাইব্রেরিয়ান

এবং দ্যা বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল মিস্ট্রি : সলভড (১৯৭৫)-এর লেখক। তার গবেষণায় তিনি চার্লস বার্লিটজ (Charles Berlitz)-এর বর্ণনার সাথে প্রত্যক্ষ্যদর্শীদের বর্ণনার অসংগতি তুলে ধরেন। যেমন যথেষ্ট সাক্ষ্যপ্রমাণ থাকার পরেও বার্লিটজ (Charles Berlitz) বিখ্যাত ইয়টসম্যান ডোনাল্ড ক্রোহার্সট (Donald Crowhurt)-এর অন্তর্ধানকে বর্ণনা করেছেন রহস্য হিসেবে। আরও একটি উদাহরণ হলো—আটলান্টিকের এক বন্দর থেকে ছেড়ে যাওয়ার তিন দিন পরে একটি আকরিকবাহী জাহাজের নিখোঁজ হবার কথা বার্লিটজ বর্ণনা করেছেন। আবার অন্য এক স্থানে একই জাহাজের কথা বর্ণনা করে বলেছেন সেটি নাকি প্রশান্ত মহাসাগরের একটি বন্দর থেকে ছাড়ার পর নিখোঁজ হয়েছিল। এছাড়াও কুসচ দেখান যে, বর্ণিত দূর্ঘটনার একটি বড় অংশই ঘটেছে কথিত ত্রিভূজের সীমানার বাইরে। কুসচ এর গবেষণা ছিল খুবই সাধারণ। তিনি শুধু লেখকদের বর্ণনায় বিভিন্ন দূর্ঘটনার তারিখ, সময় ইত্যাদি অনুযায়ী সে সময়ের খবরের কাগজ থেকে আবহাওয়ার খবর আর গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলো সংগ্রহ করেছেন—যা গল্পে লেখকরা বলেন নি। কুসচ-এর গবেষণায় যা পাওয়া যায় তা হলো—

বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলে যে পরিমাণ জাহাজ ও উড়োজাহাজ নিখোঁজ হওয়ায় কথা বলা হয় তার পরিমাণ বিশ্বের অন্যান্য সমুদ্রের তুলনায় বেশি নয়। (তার এ বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা) এ অঞ্চলে গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড় (tropical storms) নিয়মিত আঘাত হানে, যা জাহাজ ও উড়োজাহাজ নিখোঁজ হওয়ার অন্যতম কারণ; কিন্তু বার্লিটজ বা অন্য লেখকেরা এধরনের ঝড়ের কথা অনেকাংশেই এড়িয়ে গিয়েছেন।
অনেক ঘটনার বর্ণনাতেই লেখকেরা কল্পনার রং চড়িয়েছেন। আবার কোনো নৌকা নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে দেরিতে বন্দরে ভিড়লে তাকে নিখোঁজ বলে‌ প্রচার করা হয়েছে। আবার কখনোই ঘটে নি এমন অনেক ঘটনার কথা লেখকেরা বলেছেন। যেমন—১৯৩৭ সালে ফ্লোরিডার ডেটোনা সমুদ্রতীরে( Daytona Beach) একটি বিমান-দূর্ঘটনার কথা বলা হয়; কিন্তু সেসময়ের খবরের কাগজ থেকে এ-বিষয়ে কোনো তথ্যই পাওয়া যায় নি।
সুতরাং কুসচ-এর গবেষণার উপসংহারে বলা যায়, লেখকরা অজ্ঞতার কারণে অথবা ইচ্ছাকৃতভাবে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল নিয়ে বানোয়াট রহস্য তৈরি করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button